রোহিঙ্গারা শরণার্থী নয়: ত্রাণসচিব

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার | ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:৩৫
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শাহ কামাল বলেছেন, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের সহিংসতা থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা এখন পর্যন্ত অনুপ্রবেশকারী। দ্বিপক্ষীয় আলোচনায় যদি দেখা যায় বিষয়টি দীর্ঘমেয়াদি, তখন তাদের শরণার্থী ভাবার বিষয়টি বিবেচনা করা হবে। রোহিঙ্গাদের শরণার্থী হিসেবে বিবেচনা করা হবে কি না, এমন এক প্রশ্নের জবাবে গতকাল সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ সচিব। মিয়ানমার থেকে আসার পর বাংলাদেশে যেসব রোহিঙ্গা শিশু জন্ম নিচ্ছে, তাদের ব্যাপারে জানতে চাইলে মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শাহ কামাল বলেন, তাদের শুধু জন্মনিবন্ধন করা হচ্ছে। সেখানে লেখা হচ্ছে, তারা মিয়ানমারের নাগরিক। এদিকে সচিবালয়ে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক হাইকমিশনার (ইউএনএইচসিআর) ফিলিপো গ্র্যান্ডির সঙ্গে বৈঠক শেষে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেন, রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশকারীদের অস্থায়ীভাবে রাখার জন্য যে ২০০ একর জায়গা নির্ধারণ করা হয়েছে সেখানে অবকাঠামোগত উন্নয়নে সব ধরনের সহযোগিতা করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ইউএনএইচসিআর।
সেখানে রাস্তা তৈরি করতে ৩৫ কোটি টাকা খরচ হবে। এ টাকা দেয়ারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছে তারা। আশা করছি আগামীকালই (মঙ্গলবার) তারা টাকা হস্তান্তর করবে এবং টাকা পেলে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মাধ্যমে রাস্তার কাজ করা হবে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে সাময়িক সময়ের জন্য। যদি তাদের নিয়ে দীর্ঘস্থায়ী কোনো পরিকল্পনা করতে হয় তাহলে তাদের ভাসানচরে স্থানান্তর করা হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘে সে কথা বলেছেন। সে ক্ষেত্রে অবকাঠামোগত সব সহযোগিতা করবে ইউএনএইচসিআর। মানুষের বসবাস উপযোগী করে তুলতে কারিগরি সহযোগিতাও তারা করবে। প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরলে এ বিষয়টি চূড়ান্ত হবে। তিনি বলেন, ১৯৯১ সাল থেকে ইউএনএইচসিআর বাংলাদেশে কাজ করছে। তারা আমাদের পুরনো বন্ধু। আমাদের এই সমস্যার জন্য যে সহযোগিতা দরকার তা তারা দেবে।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

জামিনে আপন জুয়েলার্সের তিন মালিক

নারী সহশিল্পীর সঙ্গে যৌন সম্পর্কে বাধ্য করা হয় আমাকে

বিবাহ বহির্ভূত যৌন সম্পর্ক নিষিদ্ধ করার আবেদন প্রত্যাখ্যাত ইন্দোনেশিয়ায়

ডাবলিন সিটি কাউন্সিল ফিরিয়ে নিল সু চির খেতাব

‘বুদ্ধিজীবী হত্যায় দণ্ডপ্রাপ্তদের দেশে ফেরানোর কাজ চলছে’

ব্রেক্সিট: পার্লামেন্টে আরেক দফা শোচনীয় পরাজয় তেরেসা মে’র

অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে সাবেক কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

মিয়ানমারে রয়টার্সের দুই সাংবাদিক গ্রেপ্তার, নিঃশর্ত মুক্তি দাবি, যুক্তরাষ্ট্র, ইইউ, সিপিজের উদ্বেগ

বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে খালেদা জিয়ার শ্রদ্ধা

রোহিঙ্গা শিবিরে আগুন, ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

নিউ জেএমবির প্রতিষ্ঠাতা আটক

বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে প্রেসিডেন্টের শ্রদ্ধা

টিভিতে সাক্ষাৎকার বন্ধ করে রাহুলকে শোকজ

পূর্ব জেরুজালেম ফিলিস্তিনের রাজধানী

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে মিয়ানমার, বাংলাদেশ সফরের আহ্বান

৪ সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় ভূমিমন্ত্রীপুত্র কারাগারে