মা ও ছেলেকে কুপিয়ে হত্যা করলো যুবক

অনলাইন

নাটোর প্রতিনিধি | ১৯ নভেম্বর ২০১৭, রবিবার, ১০:২৩
নাটোর সদর উপজেলার দস্তানাবাদ ফকিরপাড়া গ্রামের আলম সর্দার (২৮) রোববার রাতে তার মা বিলকিস বেগম (৪২) এবং নিজের ছেলে আলিফ সর্দারকে কুপিয়ে হত্যা করেছে। এ সময় সে নিজের বাবা শাহাদৎ সর্দারকেও কুপিয়ে জখম করে। এলাকাবাসী আলম সর্দারকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।
নাটোর থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাত আটটার দিকে সর্দার বাড়িতে হৈ চৈ শুনে গ্রামবাসী সেখানে যায়। এ সময় সেখানে আলম সর্দারের ছেলে পিএসসি সমাপনী পরীক্ষার্থী আলিফ সর্দার (১১) ও তার মা বিলকিস বেগমকে গলাকাটা অবস্থায় দেখতে পান। ঘটনার সময় আলমের বাবা সাহাদৎ সর্দার বাড়ির বাইরে ছিলেন।
খবর পেয়ে তিনি বাড়িতে ঢোকা মাত্র তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলায় আঘাত করে আলম। রক্তাক্ত অবস্থায় গ্রামবাসী তাকে উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতালে পাঠায়। পরে তাৎক্ষনিক তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। গ্রামবাসী তাৎক্ষণিক আলম সর্দারকে আটক করে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে হেফাজতে নেয়।
নাটোরের পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার বলেন, শাহ আলম ইয়াবা আসক্ত। পারিবারিক বিরোধকে কেন্দ্র করে সে এই নৃংশংস হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভারতে তিন তালাক বিরোধী খসড়া আইনে সরকারের অনুমোদন

বিরোধীরা আসলেই কাগুজে বাঘ: মোজাম্মেল হক

গাংনী বিএনপি কার্যালয়ে ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ

বিশ্বকাপে নিষিদ্ধ হতে পারে স্পেন!

মুক্তিযোদ্ধাকে হারিয়ে দুইয়ে শেখ জামাল

সারা দেশে বিএনপির প্রতিবাদ কর্মসূচি ১৮ ডিসেম্বর

যেভাবে অপহরণকারীদের হাত থেকে মুক্ত হলেন সিলেটের ব্যবসায়ী মুন্না

মহিউদ্দিন চৌধুরীর মৃত্যুতে প্রেসিডেন্টের শোক

সানি লিওন শাড়ি না পরলে গণ আত্মহত্যার হুমকি!

রাজধানীতে লাগেজে মস্তকবিহীন লাশ উদ্ধার

‘সাধারণ মানুষের রাজনীতি করতেন মহিউদ্দিন চৌধুরী’

মন্ত্রিত্বের প্রস্তাবেও না বলেছিলেন মহিউদ্দিন চৌধুরী

সারাদেশে আবহাওয়া শুষ্ক থাকবে

বিজয় দিবস অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন ৩০ জন ভারতীয়

প্রেমিকের সঙ্গে দেখে ফেলায়...

কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩